সিগন্যাল অ্যাপ হ্যাক করা সম্ভব, দাবি ইসরায়েলের সেলব্রাইটের

সিগন্যাল অ্যাপ হ্যাক করা সম্ভব, দাবি ইসরায়েলের সেলব্রাইটের

টেক ওয়ার্ল্ড

সিগন্যাল অ্যাপ যোগাযোগ করার জনপ্রিয় একটি মাধ্যম। এটি একটি ক্রস প্ল্যাটফর্ম এনক্রিপ্টেড মেসেজিং ও ভয়েস কল পরিষেবা হিসেবে বেশ জনপ্রিয়। সাধারণত এটি হ্যাক করা যায় না বলে এত দিন মানুষ জেনে আসছিল। তবে ইসরায়েল ভিত্তিক নিরাপত্তা বিষয়ক ফার্ম সেলব্রাইট দাবি করছে, তারা অ্যান্ড্রয়েড ফোনগুলোতে সিগন্যাল মেসেঞ্জার অ্যাপ্লিকেশন ব্যবহার করে প্রেরিত বার্তাগুলোকে হ্যাক করতে পারে। খবর বিবিসি ও স্কাই নিউজের।

সেলব্রাইটের এমন দাবিকে বিশ্বাসযোগ্য বলে মনে করেন সাইবার নিরাপত্তা বিশেষজ্ঞরা। তবে সিগন্যাল এর প্রতিষ্ঠাতাসহ অন্যান্যরা এ দাবি প্রত্যাখ্যান করেছেন। এর আগে ইসরায়েল ভিত্তিক এই সংস্থাটি মার্কিন গোয়েন্দা সংস্থা এফবিআইকে একটি মামলার আসামির আইফোনের অ্যাক্সেস করতে সহায়তা করেছিল। এবার সংস্থাটির দাবি করছে তারা সিগন্যাল অ্যাপের কথোপকথন হ্যাক করতে সক্ষম।জাপানি মালিকানাধীন এই সংস্থাটি নতুন এক ব্লগ পোস্টে দাবি করেছে, তারা সিগন্যাল অ্যাপের মাধ্যমে প্রেরিত বার্তাগুলো ডিক্রিপ্ট করতে পারেন। এর মাধ্যমে তারা বার্তাগুলো দেখতে পারবেন। তবে তারা আরও দাবি করেছেন, বার্তা ডিক্রিপ্ট করার ক্ষেত্রে সেলিব্রাইটের ক্ষমতার প্রভাব এই মুহূর্তে অস্পষ্ট।

সংস্থাটি এই ডিভাইসটি আইন প্রয়োগকারী ও বেসরকারি খাতের বিভিন্ন সংস্থার কাছে বিক্রি করবেন। এতে বিভিন্ন অপরাধমূলক কর্মকাণ্ড কমানো সম্ভব হবে। সেলব্রাইট আরও বলেছে, সমাজে ন্যায় বিচার প্রতিষ্ঠা, বিভিন্ন সম্প্রদায়কে রক্ষা এবং জীবন বাঁচানোর জন্য সরকারি ও বেসরকারি খাতের গোয়েন্দাদের সক্ষমতা বাড়াতে অক্লান্ত পরিশ্রম করে যাচ্ছি।

সাধারণত এই অ্যাপ রাজনীতিবিদ, সাংবাদিক ও সন্ত্রাসীরা ব্যবহার করে থাকেন। যাতে তাদের কথোপকথনগুলো বাইরে প্রকাশ না পায়। তবে, সেলব্রাইটের দাবি মতে তারা সিগন্যাল অ্যাপের বার্তাগুলো ডিক্রিপ্ট করতে সক্ষম।

উল্লেখ্য, সিগন্যাল অন্যতম সুরক্ষিত অ্যাপ হিসেবে চ্যাটিং ও ভয়েস কলের সুবিধা দিয়ে আসছে। এর মধ্যে সেলব্রাইটের এমন দাবি নতুন করে ভাবাচ্ছে এর ব্যবহারকারীদের।